কিভাবে অধিক সময় যৌন মিলন করবেন? তিনটি গুরুত্বপুর্নপদ্ধতি।

মিলনে পুরুষের অধিক সময় নেওয়া পুরুষত্বের মুলযোগ্যতা হিসাবে গন্য হয়। যেকোন পুরুষবয়সেররসাথে সাথে মিলনের নানাবিধ উপায় শিখে থাকে।এখানে বলে রাখতে চাই – ২৫ বছরের কম বয়সী পুরুষসাধারনত বেশি সময় নিয়ে মিলন করতে পারেনা।তবে তারা খুব অল্প সময় ব্যাভধানে পুনরায় উত্তেজিত/উত্তপ্ত হতে পারে। ২৫ এর পর বয়স যত বাড়বে মিলনে পুরুষতত বেশি সময় নেয়। কিন্তু বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথেপুনরায় জাগ্রত (ইরিকশান) হওয়ার ব্যাভধানওবাড়তে থাকে।তাছাড়া এক নারী কিংবা একপুরুষের সাথেবার বারমিলন করলে যৌন মিলনে বেশি সময় দেয়া যায়এবং মিলনে বেশি তৃপ্তি পাওয়া যায়। কারন স্বরুপbr /> নিয়মিত মিলনে একে অপরের শরীর এবং ভাললাগা/মন্দলাগা, পছন্দসই আসনভঙ্গি, সুখ দেয়া নেয়ারপদ্ধতি ইত্যাদি সম্পর্কে ভালভাবে অবহিত থাকে।[উল্লেখ্যঃ যারা বলেন “এক তরকারী দিয়েপ্রতিদিনখেতে ভাল লাগেনা – তাই পর নারী ভোগের লালসা”- তাদেরকে অনুরোধ করছিঃ দয়াকরে মিথ্যাচারকরবেন না। এমন যুক্তি ভিত্তিহীন। পরকীয়া আমাদেরসমাজ ব্যবস্থাকে ধ্বংস করছে। মাত্র কয়েক মিনিটেরকাম যাতনা নিবারনের জন্য আজীবনেরসম্পর্কে অবিশ্বাসের কালো দাগ লাগাবেন কেন?অবিবাহীত ভাই ও বোনেরা, আপানাদের কি অতটা বড়বুকের পাটা আছে – যদি বিয়ের পরে আপনি জানেনযে আপনার স্ত্রী ‘সতী’ নয় তখন তার সাথে বাকি জীবনকাটাবেন? তাহলে কেন শুধু শুধু বিবাহ-পুর্ব মিলনের জন্যএত ব্যকুলতা? যে ধরনের নারীকে আপনি গ্রহনকরতে পারবেন না – অথচ সেই আপনি অন্য পুরুষের ভবিষ্যৎবধুর সতীত্ব লুটবেন?দুঃখিত যদি কারো ব্যক্তি সত্বায় আঘাতকরে থাকি।]মুল আলোচনায় আসি। বলছিলাম যৌন মিলনে অধিক সময়দেয়ার পদ্ধতি সমুহ নিয়ে…পদ্ধতি ১:- চেপে/টিপে (স্কুইজ) ধরাbr /> এই পদ্ধতিটি আবিষ্কার করেছেন মাষ্টার এবং জনসননামের দুই ব্যাক্তি। চেপে ধরা পদ্ধতিআসলে নামথেকেই অনুমান করা যায় কিভাবে করতে হয়। যখন কোনপুরুষ মনে করেন তার বীর্য প্রায় স্থলনের পথে, তখনসে অথবা তার সঙ্গী লিঙ্গের ঠিক গোড়ারদিকে অন্ডকোষের কাছাকাছি লিঙ্গের নিচেরদিকে যে রাস্তা দিয়ে মুত্র/বীর্য বহিঃর্গামী হয়সে শিরা/মুত্রনালী কয়েক সেকেন্ডর জন্যচেপে ধরবেন। (লিঙ্গের পাশ থেকে দুই আঙ্গুলদিয়ে ক্লিপের মত আটকে ধরতে হবে।)। চাপছেড়ে দেবার পর ৩০ থেকে ৪৫ সেকেন্ডের মত সময়বিরতী নিন। এই সময় লিঙ্গ সঞ্চালন বা কোন প্রকার যৌনকর্যক্রম করা থেকে বিরত থাকুন।এ পদ্ধতির ফলে হয়তো পুরুষ কিছুক্ষনেরজন্য লিঙ্গেরদৃঢ়তা হারাবেন। কিন্তু ৪৫ সেকেন্ড পুর পুনরায় কার্যক্রমচালু করলে লিঙ্গ আবার আগের দৃঢ়তা ফিরে পাবে।স্কুইজ পদ্ধতি এক মিলনে আপনি যতবার খুশি ততবারকরতে পারেন। মনে রাখবেন সব পদ্ধতিরকার্যকারীতা অভ্যাস বা প্রাকটিস এর উপর নির্ভরকরে। তাই প্রথমবারেই ফল পাওয়ারচিন্তা করা বোকামী হবে।পদ্ধতি ২:- সংকোচন (টেনসিং)br /> এ পদ্ধতি সম্পর্কে বলার আগে আমি আপনাদের কিছুবেসিক ধারনা দেই। আমরা প্রস্রাব করারসময় প্রসাবপুরোপুরি নিঃস্বরনের জন্য অন্ডকোষেরনিচথেকে পায়ুপথ পর্যন্ত অঞ্চলে যে এক প্রকারখিচুনী দিয়ে পুনরায় তলপেট দিয়ে চাপ দেইএখানে বর্নিত সংকোচনবা টেনসিং পদ্ধতিটি অনেকটা সে রকম। তবে পার্থক্যহল এখনে আমরা খিচুনী প্রয়োগ করবো – চাপ নয়।এবার মুল বর্ননা – মিলনকালে যখন অনুমান করবেন বীর্যপ্রায় স্থলনের পথে, তখন আপনার সকল যৌন কর্যক্রম বন্ধরেখে অন্ডকোষের তলা থেকে পায়ুপথ পর্যন্ত অঞ্চলকয়েক সেকেন্ডের জন্য প্রচন্ড শক্তিতে খিচে ধরুন। এবারছেড়ে দিন। পুনরায় কয়েক সেকেন্ডের জন্য খিচুনী দিন।এভাবে ২/১ বার করার পর যখন দেখবেন বীর্যস্থলনেরে চাপ/অনুভব চলে গেছে তখন পুনরায় আপনারযৌন কর্ম শুরু করুন।সংকোচন পদ্ধতি আপনার যৌন মিলনকে দীর্ঘায়িতকরবে। আবারো বলি, সব পদ্ধতির কার্যকারীতা অভ্যাসবা প্রাকটিস এর উপর নির্ভর করে। তাই প্রথমবারেই ফলপাওয়ার চিন্তা করা বোকামী হবে।পদ্ধতি ৩:- বিরাম (টিজিং / পজ এন্ড প্লে)br /> এ পদ্ধতিটি বহুল ব্যবহৃৎ। সাধারনত সব যুগল এ পদ্ধতিরসহায়তা নিয়ে থাকেন। এ পদ্ধতিতে মিলনকালে বীর্যস্থলনের অবস্থানে পৌছালে লিঙ্গকে বাহিরকরে ফেলুন অথবা ভিতরে থাকলেওকার্যকলাপে বিরাম দিন। এই সময়আপনি আপনাকে অন্যমনস্ক করে রাখতে পারেন। অর্থ্যৎসুখ অনুভুতি থেকে মনকে ঘুরিয়ে নিন।যখন অনুভব করবেনবীর্যের চাপ কমে গেছে তখন পুনরায় শুরু করতে পারেন।বিরাম পদ্ধতির সফলতা সম্পুর্ন নির্ভর করে আপনারঅভ্যাসের উপর। প্রথমদিকে এ পদ্ধতিরসফলতা না পাওয়া গেলেও যারা যৌনকার্যে নিয়মিত তারা এই পদ্ধতির গুনাগুন জানেন।মনে রাখবেন সব পদ্ধতির কার্যকারীতা অভ্যাসবা প্রাকটিস এর উপর নির্ভর করে। তাই প্রথমবারেই ফলপাওয়ার চিন্তা করবেন না।পরিশিষ্ট: উপরের সবকয়টি পদ্ধতি আপনারসঙ্গীর তৃপ্তিরউদ্দেশ্যে। অনেকের ধারনা নারী এ ট্রিকস্গুলো অনুমান বা জানতে পারলে পুরুষত্বনিয়ে প্রশ্নতুলবে। ধারনাটি সম্পুর্ন ভুল। আপনি আপনারস্ত্রীকে পদ্ধতিগুলো বুঝিয়ে বলুন। দেখবেন সেইআপনাকে সাহায্য করছে। কারনসে জানে আপনি বেশি সময় নেয়া মানে সে লাভবানহওয়া।

37 total views, 1 views today

mm
About bipul 5644 Articles

Love is Life

Be the first to comment

Leave a Reply