কিভাবে একজন নারীরস্তন্যে চুমা খাবেন ?

বেশিরভাগ পুরুষ এটা অনুমানকরেতে পারেনাbr /> যখন কোন পুরুষ তার সঙ্গীর স্তন্যে যৌনউত্তেজনা আনতে চান তখনতারা সরাসরি নিপলে (স্তন্যেরবোটা) চলে যান। পুরুষমুলতঃ এভাবে মনে করেন – ‘যেহেতুস্তন্যের বোটাই মুল উত্তেজক অংশতাই শুধু শুধু অন্য অঞ্চলে সময় নষ্ট কেন?’এটা মোটেও ভাল বুদ্ধি নয়।নারীরা আরো অনেক বেশি জটিল।নারীরা আশ্চার্যজনক কিছুঘটতে যাচ্ছে কিছুক্ষনের মধ্যে সেইআশায় থাকতে বেশি পছন্দ করে।টেনশান এবং এক্সাইটমেন্ট তাদেরবেশী পরিমানে উত্তেজিত করে।নারী তার যায়গার সর্বচ্চঅবস্থানে গিয়ে মজা অনুভব করে।যৌন মিলনের সময় একসাথে শুরুনা হয়ে ক্রমশঃ উত্তেজনা সৃষ্টি হোকএটা নারীর প্রত্যাশা।নারী কিভাবে চায় এটা?যখন আপনি স্তন্যে চুমা খাচেছন,এটা অতি উত্তম আপনি যদি স্তন্যেরভিত্তি (বেইস – নিপলথেকে সর্বচ্চো দূরে) থেকে শুরু করেন।চুমা, লেহন এবং স্পর্শ সবকিছুইথাকবে স্তন্যের ভিত্তির আশ-পাশঘেসে। তারপর আস্তে আস্তে পুর্নবৃত্তে সাপের মত চারপাশ ঘুর্নন পরিপুর্নকরুন। অতঃপর আরেকটু উপরেরদিকে পুনরার বৃত্তাকারে চুমা, লেহনএবং স্পর্শ করে অন্য ঘুর্নন বলয়তৈরি করুন।এভাবে আস্তে আস্তে স্তন্যেরবোটার দিকে আসুন।আপনি যত বেশি সময় নিয়ে বোটারকাছাকাছি আসবেন ততবেশি সে উত্তেজিত হবে। এ অবস্থায়বেশিরভাগ নারী তার এক্সপ্রেশানদিয়ে আহ্ববান করবে তার স্তন্যেরবোটা আপনার মুখে নেয়ার জন্য।এমনকি কেউ কেউ হাত দিয়ে আপনারমাথা টেনে তার বোটা চোষার জন্যচাপ সৃষ্টি করতে পারে।ধর্য্য ধরুন। এখনি মুখে স্তন্যেরবোটা নিবেন না। স্তন্যের বোটারকাছাকাছি আপনার সিঙারচালিয়ে যান। তাকে আরো ক্ষুধার্তকরে তুলুন।স্তন্যের বোটায় পৌছারআগে বোটার পাশের বাদামী রঙেরঅঞ্চল (এ্যরুলা) জুড়ে পুর্বের ন্যায় চুমা,লেহন এবং স্পর্শ করুন।এখানে কিছুটা সাবধান তারপ্রয়োজন আছে। খেয়াল রাখবেনস্তন্যের বোটায় যেন কোনছোয়া না লাগে।এবার স্তন্যের বোটা!প্রথমে জিহ্বা দিয়ে একবার লেহনকরুন। এবার হালকা ফু দিন লেহনকৃতঅঞ্চলে। এটি ঠান্ডা গরম যুক্তএকপ্রকার অনুভুতি জাগাবে তারস্তন্যে, যা অনেক নারী পছন্দ করেন।এর পুনরাবৃত্তি পুরা বোটা জুড়ে করুন।এবার কিছুক্ষনের জন্য স্তন্যেরবোটাটি মুখের ভিতর পুরে রাখুনএবং জিহ্বা দিয়ে ভেতরথেকে লেহন করুন।এখন সময় চরম চোষার!স্তন্যের বোটা আপনার মুখের ভিতরথাকা অবস্থায় আপনার ঠোটদিয়ে চাপ দিতে থাকুন। তারপরক্রমশঃ আপনার ঠোটের চাপকমিয়ে বোটা ছেড়ে দিন।এবং পুনরায় পুর্বেরকাজগুলো (বোটা মুখে নেওয়া,চোষা এবং ঠোট দিয়ে চাপ দেওয়া)।এবার আবার বোটা ছেড়ে পুর্বেরন্যায় সমস্ত স্তন্য জুড়ে আপনার তান্ডবচালান। তারপর আবার বোটায়ফিরে আসুন।হাতের ব্যবহারbr /> যখন আপনার মুখ তার স্তনে কাজকরছে তখন আপিনি হালকা করে হাতদিয়ে অন্য স্তনে ক্রমাগত চাপদিতে পারেন। লক্ষ্য রাখবেন অনেকনারী চায় এক স্তন্যে সমস্ত কর্মকান্ডশেষে অন্য স্তন্যের সিঙার চালু হোক।তাই আপনার সঙ্গীকে অবশ্যইজিজ্ঞেস করে নিন তার কি রকম চাই?কিছু গুরুত্বপুর্ন কথাbr /> *কখনো দাত দিয়ে স্তন্যে বা বোটায়কামড় দিবেন না। বেশিরভাগনারী এটা মোটেও পছন্দ করেনা।এতে বরং তার আগ্রহ মরে যায়।*কখনো এমন জোরে হাতের চাপদিবেন না যাতে আপনারসঙ্গী ব্যথা অনুভব করে।*কখনো স্তন্যের বোটা টুইষ্ট (রেডিওরনব এর মত ঘুরানো) করবেন না।*আপনি তাকে কানে কানে বলতেপারেন আপনি তার স্তন্য যুগল কত্তবেশি পছন্দ করেন। বলতে পারেনতোমার স্তন্যেরবোটা মুখে নিয়ে মনে হল আমি অমৃতচুষছি।*শুধু স্তন্যে থেমে থাকবেন না। দুইস্তন্যের মাঝের অংশটিতেও চুমা দিনএবং লেহন করুন মাঝে মাঝে।*তার কাছ থেকে তার মন্তব্যজিজ্ঞেস করুন। তার ভাললাগা/খারাপলাগার কথা শুনুন।পরিশিষ্ট: আমাদেরসবগুলো পোষ্টে শুধুমাত্র বৈধসম্পর্কের কথা বলা হয়। দয়করে অবৈধসম্পর্ক থেকে দূরে থাকুন। বিয়ে করেইশিখতে হবে যৌনতা –তা আমরা বলছি না।আবিবাহিতরা এখন শিখে রাখুন যেনবাস্তব জীবনে এর প্রয়োগ করে উপকৃতহতে পারেন।শুধুমাত্র শালীন এবং গঠনমুলক মন্তব্যগ্রহনযোগ্য।

191 total views, 0 views today

mm
About bipul 5656 Articles
Love is Life

Be the first to comment

Leave a Reply