Priyo24.Com

Place of somethings Knowing

কিভাবে ফেসবুক ফেইক আইডি চিনব?

ফেইসবুক ফেইক আইডি (Facebook Fake ID) বর্তমানে এটানতুন কিছু নয়। ফেইসবুকের জন্ম লগ্ন থেকেই ফেইকআইডির প্রচলন রয়েছে। বর্তমানে ফেইসবুকে মোটএকাউন্ট গুলোর মধ্যে প্রায় ২০-৩০% ই হল ফেইক এবং এইসংখ্যা প্রতিনিয়তই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আসলে ফেইসবুকে ফেইকআইডি খোলা হয় মূলত স্প্যাম (Spam) করার জন্য। এমন কিফেইসবুকের মাধ্যমে ভাইরাস ছড়ানোর জন্যে ওমেয়েদের নামে ফেইক আইডি খোলা হয়ে থাকে। আরফেইক আইডি গুলোর মধ্যে শতকরা প্রায় ৯৯% এই হলমেয়েদের নামে। এই আইডি গুলোতে ব্যবহার করা হয়েথাকে অপরিচিত মেয়েদের ছবি। Facebook এর জন্য একটিদুঃখের বিষয় হল যে, ফেইসবুক ম্যনুয়ালি ফেইক ফেসবুকএকাউন্ট সনাক্ত করতে পারে না। তবে হে, ওরা যদি বুঝতেপারে যে একটি একাউন্ট ফেইক, তখন তারা সেটি ব্লক/ডিলিটকরে দেয়। কয়েকটি কারনে ওরা একটি একাউন্টকে ফেইকএকাউন্ট হিসেবে সনাক্ত করতে পারে। সেগুলো হলঃ1. অতিরিক্ত ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট পাঠানো।2. অপরিচিত লোকদের ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট পাঠানো।3. অতিরিক্ত লিঙ্ক পোষ্ট করা।4. স্প্যাম কমেন্ট করা (Spam Comment)।5. ইনবক্সে লিংক শেয়ার করা ইত্যাদি। উপরক্ত কারনে একটিএকাউন্টকে ফেইসবুক ফেইক একাউন্ট হিসেবে সনাক্তকরে। এগুলোর করার পর আপনি যখন লগ-আউট (Log Out)করে আবার যখন লগ-ইন (Log In) করবেন তখন তারা “PhotoVerification” দিবে। আর এভাবেই ফেইসবুক একটি একাউন্টকেফেইক না রিয়েল তা সনাক্ত করে থাকে। এতো কিছুর পরেও ফেইসবুক ফেইক একাউন্ট রোধ করতে পারে না। তাইআজকে এই পোষ্টটির মাধ্যমে আমরা কিভাবে একটি ফেইকআইডি সনাক্ত করা যায় সেটি জানবো ১| প্রোফাইল ফটোফেইক আইডি সনাক্ত করার প্রথম উপায় ই হল প্রোফাই ফটো।আপনি একটি আইডির প্রোফাইল ফটো দেখেই বুঝতেপারবেন এইডি টি ফেইক না রিয়েল। তবে সে ক্ষেত্রেআপনাকে একটু মাথা খাঁটাতে হবে। যদি আপনার মনে সংকুচথাকে তাহলে আপনি Google Image Search এর মাধ্যমে ওএইডি টি ফেইক না রিয়েল সেটি যাচাই করতে পারবেন। যেআইডি টি নিয়ে আপনার সংকুচ প্রথমে সেইআইডির প্রোফাইলফটো টি কম্পিউটার বা মোবাইলে সেভ করুন। তার পর GoogleImage এই লিঙ্ক এ ঢুকে Camera Icon এ ক্লিক করে সেভকরা ছবি টি আপলোড করুন। দেখবেন এই ছবি দিয়ে যাবতীয়যা কিছু আছে সব কিছু বের হয়ে আসবে ২| টাইমলাইনফেইসবুক টাইমলাইনের মাধ্যমে একটি আইডির সম্পর্কে সবকিছু জানা যায়। About ট্যাবে গিয়ে আপনি দেখতে পারবেন।বেশীর ভাগ ফেইক আইডির Gender Female দেওয়া থাকে।তার মানে এই না যে সব Female আইডিই ফেইক। অনেকফেইক আইডিতেই প্রোফাইল ফটো হিসেবে একটিফটো দেওয়া থাকে। আপনি তাদের ফটো ফোল্ডারেঢুকে মাত্র ২-৩টি ফটো দেখতে পারবেন। তার মানে ধরেনিতে পারেন এটা ফেইক। যদি দেখেন বড় কোনসেলেব্রেটির ছবি দিয়ে প্রোফাইল ফটো দেওয়া তাহলেও ধরে নিতে পারেন এটা ফেইক। টাইমলাইনের About ট্যাবেদেখবেন সব তথ্য পুরোপুরি ভাবে যোগ করা না। নিয়মিতস্ট্যাটাস আপডেট না দেওয়া। ফ্রেন্ডলিষ্ট ফুলফিল থাকে।স্ট্যাটাসে বেশী লাইক পাওয়া। ইত্যাদি একটি ফেইক একাউন্ট এরলক্ষন। ৩| মেয়ে প্রোফাইল আগে বলা হয়েছে, ৯৯%ফেইক একাউন্ট খোলা হয় মেয়েদের নামে। তাই বলে সবমেয়ের প্রোফাইল ই ফেইক না এটা ও আগেই বলেছি। যদিকোন মেয়ের প্রোফাইলে ২ নাম্বার ধাপের সবগুলোবৈশিষ্ট দেখতে পান, তা হলে চোখ বুজে ধরে নিতেপারেন এটা ফেইক। অনেকগুলো ফলোয়ার, ফ্রেন্ডলিনষ্টফুল থাকা, লাইক/কমেন্ট বেশী পাওয়া ইত্যাদির কারনে মেয়েপ্রোফাইল ফেইক হয়ে থাকে। ৪| প্রথম জানুয়ারি এটি একটিমজার বিষয়। ফেইক আইডি গুলোর মধ্যে অধিকাংশই তাদেরজন্ম তারিখ ১ জানুয়ারি দিয়ে থাকে। এটি ও আপনি ফেইক একাউন্টহিসেবে ধরে নিতে পারেন। কারণ তারা মনে করে যে, ১জানুয়ারি বছরের শুরু। লোকে যেন তাদের জন্মদিনেরশুভেচ্ছা একটু অন্য রকম ভাবে দেয়। সেজন্য তারা ১ জানুয়ারিতাদের জন্ম তারিখ দিয়ে থাকে। আরেকটি কারণ হল, ফেইকআইডি খোলার সময় অনেকে অনিচ্ছাকৃত ভাবে ১ জানুয়ারিতাদের জন্ম দিন দিয়ে থাকে। আরো অনেক গুলো কারণরয়েছে একটি ফেইক আইডি চেনার। আপনি যদি আইডি টিওপেন করে একটু মাথা খাটান, তাহলেই বুঝতে পারবেন যেআইডিটি ফেইক কিনা রিয়েল। যাই হৌক আজ এপর্যন্তই। ফেইকআইডি হতে সবাই সাবধান থাকবেন।

169 total views, 3 views today

Updated: February 18, 2017 — 8:59 pm

Leave a Reply

Priyo24.Com © 2018 Raihanul Haque