Homeযৌন বিষয়ক টিপসকি করে বুঝবেন আপনি ভুল ব্রা (বক্ষবন্ধনী) পরছেন? ভুল সাইজের ব্রা চিহ্নিত করার প্রধান লক্ষন সমুহ।

কি করে বুঝবেন আপনি ভুল ব্রা (বক্ষবন্ধনী) পরছেন? ভুল সাইজের ব্রা চিহ্নিত করার প্রধান লক্ষন সমুহ।

About Blogger (Total 3257 Blogs Written) 420 Views

contributor

আমার Youtube Channel (Movie Bangla) আশা করি সবাই ভিজিট করুন।

আমাদের আগের পোষ্টে জেনেছেন –৮৫% নারী ভুল সাইজের ব্রা পরিধান করে।আপনি কি সেই ৮৫% এর একজন? আপনার ব্রা এর নাম্বার বেন্ড/ঘের এবং কাপ সাইজ কি ঠিক? যদিও আপনি কেনার সময় আপনার ব্রা সাইজ ঠিক ছিল, শরীরের ওজনের পরিবর্তন, গর্ভধারণ অথবা সন্তানকে দুগ্ধদানকালীন সময়ে স্তনের আকারের পরিবর্তনের কারনে আপনি হয়তো সাময়িক অসুবিধায় পড়তে পারেন। তবে আপনার ঘরের আয়না আপনাকে সাহায্য করতে পারে। নিম্মে বর্নিত পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি ধারনা নিতে পারেন আপনারব্রাসাইজ সঠিক নাকি ভুল?শুরু করার আগে, মনে রাখবেন যখন আপনি নতুন ব্রা ফিট কিনা তা নির্ণয় করছেন, লক্ষ্য রাখুন আপনি সবছে ঢিলা হুক ব্যবহার করতে হবে। কারন অনেক দিনের ব্যবহার এবং বারবার ধৌত করার ফলে ব্রা লেইস প্রসারিত হয়ে যেতে পারে – তখন ক্রমশঃ অপেক্ষাকৃত টাইট হুকের মাধ্যমে তা প্রয়োজনীয় সাইজে ব্যবহার করা যায়।ভুল সাইজেরব্রাবন্ধনী চিহ্নিত করার লক্ষন সমুহঃ১. ব্রা এর বন্ধনী/ঘের আপনার চামড়ায় দেবে যাচ্ছেঃযদি আপনারব্রা-বন্ধনীআপানার পিঠের স্ফীত মেদ এ দেবে যায় অথবা কাধেঁ লাল দাগ পড়ে যায় তাহলে ব্রা টি খুব টাইট – আপনাকে একটু বড় সাইজ ব্রা নিতে হবে।২. যদি ব্রা-বন্ধনী পিছনের দিকে কয়েক ইঞ্চি দূর পর্যন্ত টেনে নিয়ে যেতে পারেনঃস্বাভাবিক ফিট ব্রা পরার পর পিঠের কাছে সর্বচ্চ আপনার দুটি বৃদ্ধাঙ্গুলী সঞ্চালন করতে পারার কথা – তা না হয়ে যদি আপনার ব্রা এমন থাকেযে অনায়াসে তা কয়েক ইঞ্চি প্রসারিত করা যাচ্ছে; তাহলে ধরে নিতে হবে আপনার ব্রাসাইজ বড় এবং ঢিলা-ঢালা।৩. কাধেঁর ইলাস্টিক স্ট্রিপ আপনার ঘাড়ে চামড়ায় দেবে যাচ্ছেঃএটিই মনে হয় ঠিকমত ফিট না হওয়া ব্রা সম্পর্কে ভুল ধারনার সবছে বড় লক্ষন।ব্রাপ্রস্তুতকারী কোম্পনী আপনার স্তনের ৮০% সাপোর্ট/সমর্থন দেয়। তার মাঝে কাধেঁর স্ট্রিপ মাত্র ২০% কাজ করে। স্ট্রিপ যদি আপনার ঘাড়ের চামড়ায় দেবে যাচ্ছে, তাহলে চলার সময় স্তনের উঠানামায় তা অতিমাত্রায় চাপ সৃষ্টি করবে স্বাভাবিক। আরামদায়ক ব্রা এর জন্য এমতাবস্থায় আপনাকে বন্ধনী সাইজ একধাপ বাড়াতে হবে।৪. বন্ধনী ভুমির সাথে সমান্তরাল নয় (অর্থাৎ পিঠের মাঝা-মাঝি অংশে উপরের দিকে উঠে যাচ্ছে এবং বগলের নিচের অংশ অপেক্ষাকৃত নিচে):যদি আপনার ব্রা বন্ধনী পিঠের দিকে ধুনুক আকারে উপেরর দিকে বেঁকে যাচ্ছে, তার মানে হলো ব্রা টি অনেক ঢিলা-ঢালা। আপনার প্রয়োজনীয় সাইজ হবে বর্তমান সাইজের এক সাইজ ছোট।৫. যদি আপনার ব্রা বন্ধনীর পিছনের দিকেদুই আঙ্গুলের চেয়ে বেশি প্রবেশ করার মত ঢিলা হয়ঃআপনি যদি আপনার পিঠের অংশে আপনার দুটি বৃদ্ধাঙ্গুলীর চেয়ে বেশি প্রবেশ করাতে পারেন, তার মানে হলো ব্রা টি ঢিলা। যদি এমন হয় তাহলে অবশ্যই এক সাইজছোট ব্রা ব্যবহার করতে হবে। পক্ষান্তরে যদি দুটি বৃদ্ধাঙ্গুল অনায়াসে প্রবেশ না করতে পারে তাহলে আপনারব্রাটি বেশি আঁট-সাঁট – আপনার একসাইজ বড় ব্রা দরকার।৬. ব্রা বন্ধনী পিঠের দিকে শরীরের সাথেসমানভাবে মিশে নেইঃযদি ব্রা হুক লাগানোর পর বন্ধনীটি সমানভাবে শরীরের সাথে মিশে না থাকে, তাহলে ব্রা সাইজে বড় এবং ঢিলে-ঢালা। একসাইজ ছোট ব্রা আপনার জন্য উপযুক্ত। ব্রা বন্ধনী হয়তো আপনার কাছে খুব গুরত্বপুর্ন। কিন্তু মনে রাখেবেন বন্ধনী এক সাইজ ছোট করলে ব্রা কাপ দুই ধাপ বড় নিতে হবে তাহলে আপনার পুর্বের কাপ সাইজে ব্রা পাবেন। (বন্ধনী সাইজের সাথে কাপ সাইজের পরিবর্তন আগের পোষ্টেবর্ননা করা হয়েছে।)ভুল সাইজের ব্রা কাপ চিহ্নিত করার লক্ষন সমুহঃ১. ব্রা কাপ এর নিচের শক্ত বেইস স্তনের টিস্যুর উপর চলে আসাঃকাপের নিচের তার/শক্ত বন্ধনী নয়; শুধুমাত্র কাপের ভেতরেই আপনার সম্পুর্ন স্তন ধারন সঠিক কাপ সাইজের প্রধান বিবেচ্য বিষয়। লক্ষ্য রাখবেন বক্ষবন্ধনীর নিচের অংশের শক্ত বেইস যেন বক্ষপাঁজরে আরামদায়ক ভাবে অবস্থান করে। যদি ব্রা কাপ এর নিচের শক্ত বেইস স্তনের টিস্যুর উপর চলে আসে তাহলে বুঝতে হবে আপনার ব্রা কাপ সাইজ সঠিক নয়। এমতাবস্থায় এক সাইজ বড় কাপের ব্রা ট্রাই করতে হবে।২. স্তনে ব্রা কাপের দাগ পড়ছেঃযেসকল ব্রা তে ডিজাইনের খাতিরে অতিরিক্ত কাপড় কুচি/ভাঁজ করা থাকে অথবা ব্রা এর বিভিন্ন অংশ সংযোগকারী স্থানে সেলাই পুরু থাকে তা পরলে যদি স্তনে দাগ/চিহ্ন পড়ে যায় তাহলে বুঝতে হবে আপনার ব্রা কাপ সাইজ প্রয়োজনের তুলনায় ছোট। আরামদায়ক ব্রা এর জন্য এক সাইজ বড় কাপের ব্রা খরিদ করুন।৩. স্তনের কোষগুলোরব্রাকাপের প্রান্ত থেকে স্ফীত মনে হচ্ছেঃব্রা কাপ যে অংশে বন্ধনীর সাথে সংযুক্ত সেখানে (বগলের পাশে) অথবা কাপের উপরের অংশ হতে স্তন বাহিরের দিকে উকি দেয় তাহলে ধরে নিতে হবে আপনারকাপ সাইজ প্রয়োজনের তুলনায় ছোট। অবশ্যই ব্রা কাপের ভেতর আপনার স্তনের সমস্ত অংশ থাকতে হবে।৪. ব্রা এর দুই কাপ সংযোগকরী মাঝের কাপড় বক্ষাস্থির উপর সমতল ভাবে না বসাঃযদি ব্রা পরার পর আপনার ব্রা কাপ সংযোগকারী (বুকের মাঝামাঝি অংশে) অংশটি বক্ষাপাঁজরের অস্থি/হাড়েঁর সমান্তরলে মিশে না থাকে এবং চামড়া আর ব্রা সংযোজকের মাঝ দিয়ে অনায়াসে আঙ্গুল চলাচল করলে বুঝতে হবে আপনার ব্রা প্রয়োজনের তুলনায় ছোট সাইজের।যখন আপনার ব্রা কাপ সাইজ নির্ধারন করছেন তখন মনে রাখবেন – বেশির ভাগ নারীর একটি স্তনের চেয়ে অন্য স্তন কিঞ্চিৎ ছোট আকারের। তাই যখনি কাপ সাইজ হিসেবে বড় স্তনটিকে বিবেচনা করবেন। দ্বিতীয়তঃ ব্রা পরার পর তার উপর জামা পরে দেখতে পারেন তাহলে যদি স্তন ব্রা কাপ থেকে বাহিরে থাকে তা স্পষ্টতই দৃশ্যমান হবে এবং আপনার ব্রাএর সাইজ সম্পর্কে ধারনা পাবেন।ভুল ব্রা স্ট্রেপ (কাধেঁর ফিতা) সম্পর্কিত লক্ষনঃ১.ব্রাস্ট্রেপ কাঁধ থেকে বার বার পিছলপড়ে যাচ্ছেঃব্রা স্ট্রেপ কাঁধ থেকে খসে যাবার মানে হল আপনার স্ট্রেপটি অনেক ঢিলা। এমতাবস্থায় যদি স্ট্রেপ ছোট বড় করার ব্যবস্থা থাকে তাহলে প্রয়োজনীয় টেনশানে/টানে ছোট করে নিন। নতুবা ব্রা সাইজ এক ধাপ ছোট হবার প্রয়োজন আছে।২. আপনার ব্রা স্ট্রেপ এবং কাধেঁর ব্যবধান দুই আঙ্গুলের চেয়ে কমঃব্রা পরার পর স্ট্রেপ প্রয়োজনীয় আকারেসামঞ্জস্য করে নিন যেন এর নিচে যদি আপনার দুটি আঙ্গুল অনায়াসে যাতায়ত না করে এবং স্ট্রেপ যদি কাধেঁর মাংসে দেবে থাকে তাহলে বুঝতে হবে আপনার ব্রা সাইজ একধাপ বড় হওয়া জরুরী।ভালো লাগলে পোস্ট টি অবশ্যই শেয়ার করুন :

1,024 total views, 1 views today

1 year ago (May 10, 2017) FavoriteLoadingAdd to favorites

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts


Priyo24 Home