Priyo24.Com

Place of somethings Knowing

টেলিটক সিমের মাধ্যমে বাংলাদেশর যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদনের পদ্ধতি দেখেনিন।

এখন বাংলাদেশের প্রায় সবগুলোবিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে হয়আমাদের একমাত্র দেশীয়মোবাইল অপারেটর টেলিটক এরপ্রিপেইড সিম থেকে।কয়েকদিনের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে সকলবিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদনপ্রক্রিয়া। তো চলুন আজ জেনেনেওয়া যাক কোনবিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদন এরপদ্ধতি কেমন?এসএমএস পদ্ধতি: প্রথম ধাপ- এইধাপে একটা টেলিটক সিম যুক্তমোবাইল ফোনের ম্যাসেজ অপশনেগিয়ে টাইপ করতে হবে-.বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের কোডস্পেস দিয়ে এইচএসসিশিক্ষাবোর্ডের নামের প্রথম তিনঅক্ষর স্পেস দিয়ে এইচএসসি রোলনম্বর স্পেস দিয়ে এইচএসসিপাশের সন স্পেস দিয়ে এসএসসিশিক্ষাবোর্ডের নামের প্রথম তিনঅক্ষর স্পেস দিয়ে এসএসসি রোলনম্বর স্পেস দিয়ে এসএসসি পাশেরসন স্পেস দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়েযে ইউনিটের ফরম তুলবেন তারকীওয়ার্ড ।এরপর পাঠিয়ে দিতে হবে ১৬২২২নম্বরে।.ধরুণ আপনি, জাহাঙ্গীরনগরবিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদনকরবেন, ঢাকা বোর্ড থেকে ২০১৪সালের এইচএসসি পরীক্ষায়আপনার রোল ১২৩৪৫৬ এবং ২০১২সালের এসএসসি পরীক্ষায় আপনাররোল ছিল ৭৮৯০১২ তাহলেআপনাকে এসএমএস এ লিখতে হবেJUDHA1234562014DHA7890122012C(শেষের C হল আপনি C ইউনিটেরফরম তুলতে চাচ্ছেন)।.কোটার ক্ষেত্রে এই এসএমএস এরশেষে স্পেস দিয়ে কোটারকীওয়ার্ড দিতে হবে।.যেমন মুক্তিযোদ্ধা কোটা যদিFFQ উল্লেখ থাকে তাহলে লিখতেহবে:JUDHA1234562014DHA7890122012CFFQদ্বিতীয় ধাপঃ এসএমএস পাঠানোরপর সকল তথ্য সঠিক হলেআবেদনকারীর নাম, ভর্তিপরীক্ষার ফি এবং একটি পিন কোডজানানো হবে।.আবেদন করতে সম্মতি জানানোরজন্যে আপনাকে আবার লিখতেহবে-বিশ্ববিদ্যালয়ের নামেরকোড YES প্রাপ্যপিন কোড যে মোবাইলনম্বরে আপনার সঙ্গে যোগাযোগকরতে পারবে তার নম্বর ।এক্ষেত্রে আপনার যে নম্বরটিসবসময় ব্যাবহার করেন সেইনম্বরটিই দিবেন। এসএমএসের জন্যেব্যবহৃত নম্বর না দিলেও চলবে।.আপনার মোবাইলে পর্যাপ্ত টাকাথাকলে টাকা কেটে নিয়ে সঙ্গেসঙ্গেই আপনাকে একটি রোল নম্বরপ্রদান করা হবে। আপনার কাজশেষ। এখন শুধু বিশ্ববিদ্যালয়েরশর্ত অনুসারে ভর্তি পরীক্ষার সময়আপনাকে সঙ্গে করে পাসপোর্টসাইজের ছবি এবং কিছু কাগজপত্রনিয়ে যেতে হবে।.বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোড:এসএমএস এর মাধ্যমে যেসকলবিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করাযাচ্ছে সেগুলোর কোড নিচেদেওয়া হলোঃচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (CU),জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (JNU),জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়(JU),রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (RU),খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (KU),ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (IU),কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (COU),জাতীয় কবি কাজী নজরুলবিশ্ববিদ্যালয় (KNU),বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়(BRUR),বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (BU),শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট (SUST),যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (JUST),পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (PSTU),মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ওপ্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, টাঙ্গাইল(MBSTU),হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞানও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,দিনাজপুর (HSTU),নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয়(NSTU),পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (PUST),রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (RUET),চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (CUET),বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় (BSMRSTU),বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়(BAU),বাংলাদেশ টেক্সটাইলবিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষিবিশ্ববিদ্যালয় (SAU),সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়(SYLAU),চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এনিমেলসায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়(CVASU),বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষিবিশ্ববিদ্যালয় (BSMRAU).বোর্ডের নামের কোড: বিভিন্নবোর্ডের নামের প্রথম ৩ অক্ষরইহবে ঐ বোর্ড এর নামের কোড।নিচে সকল বোর্ড এর নামের কোডতুলে দেওয়া হলোঃঢাকা বোর্ড (DHA), চট্টগ্রাম বোর্ড(CHI),রাজশাহী বোর্ড (RAJ),কুমিল্লা বোর্ড (COM), দিনাজপুরবোর্ড (DIN),যশোর বোর্ড (JES), সিলেট বোর্ড(SYL),বরিশাল বোর্ড (BOR),মাদ্রাসা বোর্ড (MAD),ও এবং এ লেভেলের জন্যে (GCE)এবংঅন্যান্যদের জন্যে (OTH)

74 total views, 1 views today

Updated: August 1, 2017 — 10:52 pm

Leave a Reply

Priyo24.Com © 2018 Raihanul Haque