‘পয়মন্ত’ মাঠে অনুশীলন করল টিম টাইগার

গল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম। পেছেন
৪০০ বছরের পুরনো পর্তুগীজদের তৈরী দূর্গ।
ছবিটি নিজের ফেসবুক পাতায় পোস্ট করেছেন
টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।
আর মাত্র ১দিন পরেই ছবির মত সুন্দর এই
স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্ট ম্যাচে লঙ্কানদের
মুখোমুখি হবে মুশফিকরা। তার আগে আজ
রবিবার চির পরিচিত স্টেডিয়ামটিতে ঘাম ঝড়াল
বাংলাদেশ। চির পরিচিত তো বটেই, কারণ এই
মাঠেই ২০১৩ সালে টেস্টে দলীয় সর্বোচ্চ ৬৩৮
রান করেছিল বাংলাদেশ। সেই টেস্টটি ড্র
হয়েছিল। তবে শ্রীলঙ্কার জন্যও গল কিন্তু
দারুণ পয়মন্ত। এই মাঠে খেলা ২৮ ম্যাচে
স্বাগতিকরা ১৬টিতেই জিতেছে, হেরেছে ৬টিতে।
ড্র হয়েছে ৬টি ম্যাচ।
দলীয় সর্বোচ্চ রানের পাশাপাশি এই মাঠে
আরও একটি ইতিহাস আছে বাংলাদেশের। সেটি
হলো, এই মাঠেই প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার
হিসেবে টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন
মুশফিকুর রহিম। আবার লঙ্কান অধিনায়ক
রঙ্গনা হেরাথ গলে ২৩.৮৮ গড়ে নিয়েছেন ৮৪
উইকেট। বাঁহাতি এই স্পিনারের পাঁচ উইকেট ৮
বার, ১০ উইকেট ৩ বার। সুতরাং, খুব ঠান্ডা
মাথায় হেরাথকে মোকাবেলা করতে হবে
টাইগারদের। তাকে উইকেটবঞ্চিত রাখতে পারলে
একটা ভালো কিছু সম্ভব হবে।
হেরাথ আগেই বলেছিলেন, টেস্টে এখনও
বাংলাদেশকে অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। তবে
শ্রীলঙ্কা সফরে আসা বাংলাদেশ দলটিই
সবচেয়ে সেরা দল। প্রতিপক্ষের প্রশংসার জন্য
নয়, নিজেদের তাগিদ থেকেই সেরাটা দিতে
প্রস্তুত মুশফিক বাহিনী। আজ সকাল থেকে
তাদের অনুশীলনেও ধরা পড়ল সর্বোচ্চটা
উজার করে দেওয়ার সংকল্প।

About bipul 5693 Articles
Love is Life

Be the first to comment

Leave a Reply