ভিজিডি কার্ড দেয়ার কথা বলে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ভিজিডির তালিকায়
নাম দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক প্রতিবন্ধী
গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের
প্রত্যন্ত অঞ্চল ইটালুকান্দা গ্রামে এ ঘটনা
ঘটে।
এলাকাবাসী জানায়, দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ১নং
ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক গত ৩
মার্চ সকাল ১০টার দিকে একই গ্রামের এক
প্রতিবন্ধী গৃহবধূকে ভূট্টা ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে
ধর্ষণ করে।
এসময় ওই এলাকার বজলার রহমানের ছেলে
আতোয়ার রহমান তাদের দেখে ফেললে ইউপি
সদস্য দ্রুত সটকে পড়েন। পরে আতোয়ার
রহমান বিষয়টি এলাকার মাতব্বরদের আবগত
করেন।
গ্রামের মাতব্বর এশাদুল হক বলেন,
আতোয়ারের কাছে অভিযোগ পাওয়ার পর
আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি
ঘটনার পরপরেই তিনি আত্মগোপনে চলে
গেছেন।
শারীরিক প্রতিবন্ধী গৃহবধূ (২৫) বলেন, মেম্বার
রাজ্জাক অনেক দিন থেকে তাকে ভিজিডির
তালিকায় নাম দেবে বলে আমাকে কু-প্রস্তাব
দিয়ে আসছিল। তাতে আমি রাজি হইনি। ঘটনার
দিন আমি বাবার বাড়ি থেকে আসার সময় চরে
ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে যা করার তাই (ধর্ষণ)
করেছে। আমি এর বিচার চাই।
অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক বলেন,
এ ধরণের কোনো ঘটনাই ঘটেনি। ঘটনার দিন
আমি কুড়িগ্রামে ছিলাম রোববার বাড়িতে এসে
এসব শুনছি। নিবার্চন করে মেম্বার হয়েছি
আমার অনেক শত্রু আছে তারাই আমার নামে
এই বদনাম ছড়াচ্ছে। এর মূল হোতা কে তা
আমিও খুঁজছি।
দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শামছুল
হক বলেন, ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। তবে কেউ
আমাকে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে
ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে রৌমারী থানার ওসি (তদন্ত) মো.
রুহানী জানান, এখনো এ বিষয়ে থানায় কোনো
অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে
ব্যবস্থা নেয়া হবে। -যুগান্তর

About bipul 5693 Articles
Love is Life

Be the first to comment

Leave a Reply