মেসির মানবিকতা!

সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার। তার ফুটবলীয়
কারিশমায় মুগ্ধ গোটা দুনিয়া। বল পায়ে যা
করতে পারেন; তা অজানা নয় কারোরই।
আর্জেন্টিনা জাতীয় দল ও বার্সেলোনার
প্রাণভোমরা তিনি। আর কেউ নন; পাঁচবারের
বর্ষসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। ফুটবলের
বাইরেও তো একটা জীবন আছে। যে জীবনে
মেসি অনেক বেশি শান্ত-শিষ্ট; আবার
মানবিকও।
চলতি বছরের শুরুতেই মানবিকতার পরিচয়
দিয়েছিলেন মেসি। বার্সেলোনার নেন্স
হাসপাতালে অসুস্থ শিশুদের সঙ্গে সময়
কাটাতে যান লিওনেল মেসি। তার সঙ্গে ছিলেন
লুইস সুয়ারেজও। শিশুদের মধ্যে একজন ছিল
কাপদেভিয়ার ছেলে। শিরদাঁড়ার সমস্যায় যে
ভর্তি। প্রায় আধাঘণ্টা জুনিয়র কাপদেভিয়ার
সঙ্গে কাটান মেসি।
এর আগে গত বছরের জুনে মেসি একটি মানহানির
মামলায় জিতেছিলেন। সেই সুবাদে পান প্রায়
৬৫ হাজার ইউরো। টাকার অঙ্কটা অবশ্য
মেসির মতো তারকার জন্য বড় কিছু নয়। তবে
সেটুকু দিয়েই করলেন ভিন্ন কিছু। পুরোটাই
দিয়ে দিলেন দাতব্য কর্মকাণ্ডে।
এবার হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে
নেমেছেন মেসি। এই ভাইরাসে আক্রান্ত
রোগীদের চিকিৎসায় ৩ হাজার ডোজ মেডিসিন
দিলেন দাতব্য হাসপাতালে। তার দাতব্য
ফাউন্ডেশন থেকেই দিয়েছেন এই অর্থ।
এর মধ্যে এক হাজার ডোজ মেডিসিন যাবে
আর্জেন্টিনায়। বাকি ২ হাজার ডোজ যাবে
বিশ্বের অন্যান্য স্থানে। মেসি বলেন, ‘‘বিশ্বকে
ভালো অবস্থানে নিয়ে যেতে আরেকটি
পদক্ষেপ। আমার ফাউন্ডেশনের লক্ষ্য অনুসরণ
করেই এগোচ্ছি। এই ভাইরাসের (হেপাটাইটিস
‘সি’) বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছি। সঙ্গত কারণেই
আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ালাম।’’

About bipul 5693 Articles
Love is Life

Be the first to comment

Leave a Reply