Priyo24.Com

Place of somethings Knowing

হয় এবার, না হয় আর কখনোই বিশ্বকাপ জিতবো না : মেসি

ব্রাজিল থেকে ২০১৪ বিশ্বকাপটাহাতে ধরা দিতে গিয়েও দিলো না।ফাইনালে জার্মানির কাছে ১-০ গোলে হেরে লিওনেল মেসির হাতে অধরাই থাকলো বিশ্বকাপের সোনালি ট্রফিটা। চার বছর পর আবারও বিশ্বকাপ খেলতে নামছেন লিওনেল মেসি অ্যান্ড কোং।এবার রাশিয়ায় এবং এবারও অন্যতম ফেবারিট মেসির আর্জেন্টিনা। বরং, অনেকেই মনে করছেন- এবারই হয়তো বিশ্বকাপ ট্রফিটা উঠে যাবে মেসির হাতে। মেসি নিজেও মনে করছেন তেমনই। শুধু তাই নয়, তার এবং সতীর্থদের জন্য এটাই বিশ্বকাপজয়ের শেষ সুযোগ মনে করছেন তিনি।মেসি নিজেই বলে দিয়েছেন, ‘রাশিয়া থেকে এবারই আমাদের বিশ্বকাপ জেতার শেষ সুযোগ। এবার যদি জিততে না পারি, তাহলে আমি এবং আমার সতীর্থরা আর কখনোই বিম্বকাপটা জিততে পারবোনা।’২০১৪ সাল থেকে টানা তিন বছরে তিনটি বড় বড় টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছেন মেসি এবং তার সতীর্থরা। ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে, এরপর ২০১৫ ও ২০১৬ সালে টানা দুই বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠে হেরেছে চিলির কাছে। ৩০ বছর বয়সী মেসি তাই মনে করছেন, বিশ্বকাপ জয়ের এবারই তাদের সামনে শেষ সুযোগ।স্পেনের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে মাঠে নামার আগে আর্জেন্টিনার ফক্স স্পোর্টসের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, ‘এটাছিল আমাদের জন্য কঠিন একটি কাজ। কারণ, আমরা বিশ্বকাপ ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরতে পারিনি।বিশ্বকাপ ট্রফির পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে দুঃখজনক ঘটনা।’বিশ্বকাপ জিততে না পারার দুঃস্বপ্ন থেকে মুক্তি চান মেসি। তিনি নিজেই সেটা বলছেন এভাবে, ‘বিশ্বকাপ জিততে না পারার যে বিঃস্বাদ, সেটা থেকে আমরা মুক্তি চাই। বিশ্বকাপ ট্রফিটা এবার যেভাবেই হোক জিততে চাই। কারণ, আগেরবার বিশ্বকাপ ট্রফির এত কাছে গিয়েও সেটাকে ছুঁতে না পারার কষ্ট এখনও আমাদের সবাইকে কুরে কুরে খাচ্ছে।’নিজেদের জন্য না হোক, অন্তত আর্জেন্টিনা সমর্থকদের জন্য হলেও বিশ্বকাপ ট্রফিটা উঁচু করে তুলে ধরতে চান মেসি। তিনি বলেন, ‘আমাদের নিজেদের মধ্যেই একটা দায়বদ্ধতা রয়েছে। আমরাসমর্থকদের কাছে ঋণগ্রস্থ থাকতে চাই না। কারণ, সব সময়ই আমরা নিজেদের শতভাগ উজাড় করে দিয়ে চেষ্টা করি। এ কারণেই তিনটা ফাইনাল খেলতে পেরেছিলামআমরা।’এবার না হলে আর কখনোই বিশ্বকাপজিততে পারবেন না বলে মন্তব্য করলেন মেসি। তিনি বলেন, ‘আমরা অনুভব করতে পারছি। যদি পারি তোএবারই পারবো। আর যদি এবার না পারি, তাহলে আর কখনোই পারবো না। এ কারণেই আমাদের চিন্তায় রয়েছে, আমাদের এই গ্রুপটার জন্য বিশ্বকাপ জেতার এটাই হলো শেষ সুযোগ।’পাঁচবারের ফিফা বর্ষসেরার পুরুস্কার বিজয়ী এই ফুটবলার এখনও ২০১৪ বিশ্বকাপ ফাইনালে নিজের ভুলের কথা ভুলতে পারেননি। তিনি বলেন, ‘আমি কখনোই আর জার্মানির বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচটি দেখিনি। আমি মনে করতে পারি, গোল করার বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছিলাম।এটা ছিল খুবই দুঃখজনক যে, কিভাবে আমি বলে শট নিয়েছিলাম। যেভাবে আমি আমার পায়ের পজিশনটা নিয়ে যাই, সেটা ছিল না। চেলসি কিংবা অন্যদলগুলোর বিপক্ষে যেভাবে অন্য উপায়ে বলে শট নিই সেভাবে নিতেপারলেও হয়তো গোল করতে পারতাম।’তবে মেসি বিশ্বাস করেন, বিশ্বকাপ জয়ের রাস্তাটা এত সহজ নয়। একই সঙ্গে তিনি আরও চারটি দেশকে রাশিয়া বিশ্বকাপে ফেবারিট হিসেবে চিহ্নিত করলেন। বরং, তাদের চেয়েও নিজেদের পিছিয়ে রাখলেন তিনি। মেসি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমরা তাদের চেয়ে বিশ্বকাপ জয়ের বেশি দাবিদার নই। কারণ, এখানে আরও বড় বড় শক্তি রয়েছে। যেমন- স্পেন, জার্মানি, ব্রাজিল এবং ফ্রান্স।’

197 total views, 2 views today

Updated: March 27, 2018 — 5:20 pm

Leave a Reply

Priyo24.Com © 2018 Raihanul Haque