HomeFun & Lifestyle Menuব্রেকআপের পর যে কাজগুলো করবেন না

ব্রেকআপের পর যে কাজগুলো করবেন না

About Blogger (Total 3257 Blogs Written) 79 Views

contributor

আমার Youtube Channel (Movie Bangla) আশা করি সবাই ভিজিট করুন।

ব্রেকআপের পরের সময়টায় আপনার রাগ বেড়ে যাবে কিংবা খুব একাকী লাগবে তবে আপনার উচিত ইতিবাচক থাকার চেষ্টা করা। ব্রেকআপের পর ১৫টি কাজ করা আপনার একেবারেই অনুচিত। এ নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনেরআজকে থাকছে প্রথম পর্ব।১. আরেকটি সুযোগের জন্য মিনতি করবেন নাঅবশ্যই আপনি আপনার প্রাক্তন সঙ্গীর অভাবটা খুব বেশি বোধ করবেন এবং হয়তো পুরো ব্যাপারটা নিয়ে বেদনার মধ্যেথাকবেন। কিন্তু তাকে ফিরে আসার জন্য কাকুতি-মিনতি করবেন না। আপনি যদি এটা করতেই বদ্ধ পরিকর থাকেন তবে নিজের মনকে জিজ্ঞেস করুন। এমনটাই মত হাফিংটন পোস্ট ব্লগের এবং ‘বি ফেয়ারলেস : চেঞ্জ ইয়োর লাইফ ইন টুয়েন্টি এইট ডেইজ’ বইয়েরলেখক সাইকো থেরাপিস্ট জনাথন আলপার্টের। তিনি আরো বলেন, ‘আপনি কী প্রাক্তন মানুষটাকেই মিস করেন নাকি তার চিন্তা-ভাবনাগুলোকে? দুটো ব্যাপারে যথেষ্ট বড় ব্যবধান আছে।’২. কল বা মেসেজ দিবেন নাব্রেকআপের পর আপনি যদি ভালো থাকতে চান, তাহলে অন্তত ৩০ দিন তার সঙ্গে যোগাযোগ না করার জন্য লক্ষ্য নির্ধারণ করুন। এই ৩০ দিনই পরে ৪০……৫০ বা তার চেয়ে বেশি দিন আপনাকে এগিয়ে নিবে। আর তারপরই আপনার ভালো থাকার কিংবা অন্যান্য দিকে মন দেয়ার মতো পরিবেশ তৈরির সম্ভবনা তৈরি হবে।৩. আপনার দৃষ্টিকোণ পরিবর্তন করতে ভয় পাবেন নাআলপার্টের পরামর্শ মতে, ‘ভেবে নিন, আপনিই বরং তার কাছ থেকে সরে এসেছেন। আপনি প্রত্যাখ্যাত হয়েছেন- নিজের এই অবস্থান থেকে সরে আসুন। এটাআপনাকে মানসিক ভাবে আরো শক্তিশালী করবে। নিজেকে পরিস্থিতির শিকার নয় বরং নিয়ন্ত্রক মনে হবে।৪. নতুন পরিচিত হওয়া মানুষটিরসঙ্গে প্রেম বা বিয়েতে জড়াবেন নামনে যখন প্রতিশোধের চিন্তাভাবনা থাকে তখন নতুন কাউকে সে জায়গায় বসানো খুবই সহজ ব্যাপার। নিউইয়র্কের সম্পর্ক এবং শিষ্টাচার বিশেষজ্ঞ এপ্রিল ম্যাসিনির মতে, আপনার উচিত নিজের মনকে আপাতত দমিয়ে রাখা। তার ভাষ্যমতে, একটা বেদনাদায়ক সম্পর্কচ্ছেদের পর কিছুদিন একাকী থাকাই আপনার জন্য ভালো ব্যবস্থা। এটা অন্তত আপনাকে এই নিশ্চয়তা দেয় পরেরবার সম্পর্কটা এমন আবেগতাড়িত, এলোমেলো হবে না, যাতে করে আপনি আরেকটা ব্রেককাপের মুখে পড়বেন। তিনি বলে, ‘কি ঘটেছে আর কোথায় কোথায় আপনার চাওয়া পাওয়ার হিসেব মিলেনি তা নিয়ে কিছুটা সময় ভাবুন আর চিন্তা করুন পরেরবার অপনি আসলে কী করতে চান।’৫. অত্যাধিক পার্টি অনুষ্ঠানে মেতে থাকবেন নানিজের চাপা কষ্টগুলো ভুলে থাকার জন্য ব্রেকআপের পরের সময়টায় পার্টিতে যাওয়াটা খুবই আকর্ষণীয়। কিন্তু এটা আসলে ভুল। ‘কিছু মানুষ এর মাধ্যমে নিজেকে আকর্ষণীয় ও আবেদনময়ী করার চেষ্টা করে।’ এমনটাই মত দ্য রিলেশনশিপ ফিক্স : ড. জেন’স সিক্স-স্টেপ গাইড টু ইমপ্রুভিং কমিউনিকেউশন, কানেকশন অ্যান্ডইনটিমেসি’ বইয়ের লেখক ড. জ্যান ম্যানের। সম্পর্ক ভাঙারসঙ্গে সঙ্গেই যদি আপনি পার্টি যাওয়া, মদ্যপান করা, প্রেমের অভিনয় শুরু করেন, তাহলে দুঃখ ভোলার এই প্রক্রিয়া সঠিক নয়। ড. জেন ম্যানের কথা অনুযায়ী, ‘আমরা যদি এই ব্যাপারে সময় না নিই এবং নিজেদের নিয়ে কাজ না করি তাহলে পরেরবার সম্পর্কের বেলায় আমরা আরো বেশি ভুগবো।’৬. কষ্ট এড়িয়ে যাবে নাব্রেকআপের পরের যন্ত্রণাদায়ক সময়টা ভুলে থাকতে আপনি হয়তো নিজের মনের কষ্টটাকে দূরে সারিয়ে রাখতে চাইবেন কারণ এটা খুবই ভয়াবহ। কিন্তু এমনটা করলে আপনি কখনই মায়া ছেড়ে বেরোতে পারবেন না। এই মায়া কাটানোর একমাত্র পথ কষ্টগুলো এড়িয়ে না গিয়ে তা সঙ্গে করে পথ চলাটারই, অভিমত ড. ম্যানের।৭. স্বাভাবিক থাকুনযে মাত্র প্রাক্তনের প্রতি বাজে ধারণা আসবে তা নিয়ন্ত্রণ করুন। কেননা এটা মানসিক যন্ত্রণা কাটাতে মোটেওকোনো সমাধান নয়। ম্যাসিনির মতে, বাজে কথাগুলো আপনার ব্যক্তিত্বকে তুলে ধরে। আপনারপ্রাক্তনের নয়। এটা কখনো ভদ্র আকর্ষণীয় ফলপ্রসূ আচরণ নয়। আপনার যখন উপরে ওঠার দরকার এটি আপনাকে নিচে নামিয়ে দেবে। আপনার প্রাক্তনের দ্বারা কষ্ট পেলেওনীরবে সহ্য করে নিজেকে বড় প্রমাণ করুন। আপনার কাছের বন্ধু আর পরিবারের কাছে ফিরে যান।৮. নিজের প্রতি কঠোর হবেন নাসাইকোলজি টুডের ড. গাই উইঞ্জেরমতে, ‘এ সময় নিজের প্রতি কঠোর হওয়া উচিত না। নিজের অহংবোধ আর আত্মসম্মান ইতিমধ্যে আঘাতপ্রাপ্ত, তাই এটাকে আরো বাজে দিকে নিয়ে যাবেন না। এমনকারো সঙ্গে মিশুন যে আপনার প্রাক্তন সম্পর্কে কিছু জানে না। যদি আপনার এগিয়ে যেতে সমস্যা হয়, তাহলে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেয়াই উত্তম।(আগামী পর্বে সমাপ্য)

182 total views, 1 views today

9 months ago (December 31, 2017) FavoriteLoadingAdd to favorites

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts


Priyo24 Home